1. abunayeem175@gmai.com : Abu Nayeem : Abu Nayeem
  2. sajibabunoman@gmail.com : abu noman : abu noman
  3. asikkhancoc085021@gmail.com : asik085021 :
  4. nshuvo195@gmail.com : Nasim Shuvo : Nasim Shuvo
  5. nomun.du@gmail.com : Agri Nomun : Agri Nomun
  6. rajib.naser@gmail.com : Abu Naser Rajib : Abu Naser Rajib
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৩:৩৬ পূর্বাহ্ন

মিরাজের স্পিনে কাঁপছে শ্রীলংকা

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৩ মে, ২০২১

মেহেদী হাসান মিরাজের অফ স্পিনে রীতিমতো কাঁপছে শ্রীলংকা ক্রিকেট দল। টাইগারদের বিপক্ষে ২৫৮ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে মিরাজের ঘূর্ণি বলে বিভ্রান্ত হয়ে একের পর এক সাজঘরে ফেরেন ধানুশকা গুনাথিলাকা, কুশল পেরেরা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও আশিন বান্দারা।

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ২৫৮ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে দলীয় ৩০ রানে মিরাজের অফ স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে ফেরেন ওপেনার ধানুশকা গুনাথিলাকা।

দলীয় ৪১ রানে পাথুম নিশাঙ্কাকে সাজঘরে ফেরান মোস্তাফিজুর রহমান। নিজের প্রথম ওভারেই সাফল্য পান এই কাটার মাস্টার।

মেহেদী হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমানের পর শ্রীলংকা শিবিরে আঘাত হানেন সাকিব আল হাসান। তার বাঁ-হাতি স্পিনে শিকার হয়ে সাজঘরে কুশল মেন্ডিস। ১৮.১ ওভারে ৮২ রানে ৩ উইকেট হারায় শ্রীলংকা।

ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মিছিলে ব্যতিক্রম ছিলেন অধিনায়ক কুশল পেরেরা। ইনিংসের শুরু থেকেই দেখে শুনে খেলে যান তিনি। লংকান এই অধিনায়ককে চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরান মিরাজ। তার স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে বোল্ড হয়ে ফেরেন লংকান অধিনায়ক কুশল পেরেরা।

পেরেরা আউট হওয়ার পর মাত্র ৮ রানের ব্যবধানে ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও আশিন বান্দারাকে সাজঘরে ফেরান মিরাজ। এদিন ১০ ওভারে মাত্র ৩০ রান খরচ করে ৪ উইকেট শিকার করেন এ অলরাউন্ডার।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শ্রীলংকার সংগ্রহ ৩১.৩ ওভারের খেলা শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৩৮ রান। জয়ের জন তাদের শেষ ১১১ বলে করতে হবে ১২০ রান। হাতে আছে ৪ উইকেট।

রোববার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও তামিম ইকবালের ফিফটিতে ৬ উইকেটে ২৫৭ রান করে বাংলাদেশ।

এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমেই বিপদে পড়ে যায় তামিম ইকবালের নেতৃত্বাধীন দলটি।স্কোর বোর্ডে মাত্র ৫ রান যোগ হতেই উইকেট হারান লিটন দাস। রানের খাতা খুলার আগেই ফেরেন এই ওপেনার।

তিনে ব্যাটিংয়ে নেমে টেস্টের স্টাইলে ব্যাটিং করে ৩৪ বলে মাত্র ১৫ রান করে ফেরেন সাকিব আল হাসান। দলীয় ৪৩ রানে ফেরেন তিনি।

ইনিংসের শুরু থেকে দায়িত্বশীল ব্যাটিং করে যাওয়া তামিম ইকবাল ফেরেন ফিফটি পূর্ণ করে। ৭০ বলে ৫২ রান করে আউট হন বাংলাদেশ দলের এই অধিনায়ক।

এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই সাজঘরে ফেরেন মোহাম্মদ মিঠুন। ডি সিলভার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন তিনি।

৯৯ রানে প্রথমসারির ৪ ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরেন মুশফিকুর রহিম। পঞ্চম উইকেটে তারা গড়েন ১০৯ রানের জুটি।

ফিফটির পর সেঞ্চুরির পথে হাঁটা মুশফিক শেষ পর্যন্ত আক্ষেপ নিয়েই মাঠ ছাড়েন। মাত্র ১৬ রানের জন্য ওয়ানডে ক্যারিয়ারের অষ্টম সেঞ্চুরি মিস করেন তিনি। সাজঘরে ফেরার আগে ৮৭ বলে ৪টি চার ও এক ছক্কায় ৮৪ রান করে দলীয় ২০৮ রানে আউট হন জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক।

মুশফিক আউট হওয়ার পর ৭০তম বলে ওয়ানডে ক্রিকেটে ২৪তম ফিফটি পূর্ণ করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ফিফটির পর নিজের ইনিংসটা আর লম্বা করতে পারেননি এই তারকা অলরাউন্ডার ক্রিকেটার; ফেরেন ৭৬ বলে দুই চার ও এক ছক্কায় ৫৪ রান করে।

শেষদিকে আফিফ হোসেনের ২২ বলের অপরাজিত ২৭ আর মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের ৯ বলের ১৩ রানের সুবাদে ৬ উইকেটে ২৫৭ রান করতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ দল। শ্রীলংকার হয়ে ৪৫ রান খরচ করে তিন উইকেট নেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।